পরকীয়া প্রেমিকের সঙ্গে হোটেলে স্ত্রী, ধরলেন স্বামী

রাজশাহীর সাহেব বাজার এলাকায় পরকীয়ার অভিযোগ এনে স্ত্রীর সঙ্গে প্রকাশ্যে মাঝরাস্তায় টানাহেঁচড়া ও মারপিট করতে দেখা গেছে এক ব্যক্তিকে।মঙ্গলবার (২৪ মে) দুপুরে আবাসিক হোটেল নাইস ইন্টারন্যাশনালের সামনে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় ওই নারীর কথিত প্রেমিককেও আটক করে সাধারণ মানুষ। প্রায় আধাঘণ্টা ধরে চলা এই টানাহেঁচড়ার পর বোয়ালিয়া থানা পুলিশ তাদের তিনজনকে থানায় নিয়ে যায়।

ঢাকায় একটি আর্থিক প্রতিষ্ঠানে চাকরি করা ওই নারীর স্বামী (৩৬) জানান, তার স্ত্রী (৩৪) দীর্ঘদিন ধরে কিশোরগঞ্জ জেলার করিমগঞ্জের বাহাদুরপুরের এক ব্যক্তির (৩৫) সাথে অনৈতিক সম্পর্কে জড়িত রয়েছেন। তাদের আড়াই বছরের দাম্পত্য জীবনে এখন কলহ ছাড়া কিছুই নেই। পুলিশের কাছে ওই নারী জানিয়েছেন, তিনি রাজধানীতে হাতিল ফার্নিচারের একটি শোরুমে কাজ করেন।

অন্যদিকে তার কথিত প্রেমিক রাজধানীর নাভানা ফার্নিচার শোরুমে কাজ করেন। ওই নারীর স্বামী জানান, তার স্ত্রী যখন নাভানা ফার্নিচার শোরুমে কাজ করতো তখন থেকেই তার পরকীয়া সম্পর্ক। বিভিন্ন সময়ে বান্ধবীর বাড়ি যাওয়ার কথা বলে প্রেমিকের সাথে ঘুরে বেড়ানোর অভিযোগ আনেন তিনি। দুদিন আগেও রাজশাহীতে বান্ধবীর বাড়ি আসার নাম করে প্রেমিকের সাথে হোটেল নাইস ইন্টারন্যাশনালের ৫০৩ নম্বর রুমে ওঠেন তার স্ত্রী।

বান্ধবীর বাড়ি গিয়ে একটি সেলফি তুলে স্বামীকে পাঠিয়ে তিনি জানান, তিনি বান্ধবীর বাড়িতেই আছেন। এদিকে তার স্বামী খুঁজতে খুঁজতে হোটেল নাইসে তাদের দুজনকে হাতেনাতে ধরে ফেলে। দুপুরে সড়কের মধ্যে প্রকাশ্যে এই তিনজনের মারামারি দেখে এগিয়ে আসে স্থানীয়রা। তারা তাদের নিবৃত্ত করার চেষ্টা করেও ব্যর্থ হয়। পরে বোয়ালিয়া থানা পুলিশে খবর দিলে পুলিশ এসে তাদের নিয়ে যায়। থানায় গিয়ে ওই নারী জানান, তিনি তার স্বামীর সাথে থাকতে চান না।

বোয়ালিয়া থানার ওসি মাজহারুল ইসলাম বলেন, মাঝরাস্তায় তিনজনের একেবারে বেগতিক পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছিল। তাই টহল পুলিশ তাদের থানায় আনে। অসামাজিক কার্যকলাপের অভিযোগ এনে দুজনকে আদালতে পাঠানো হয়েছে। আর ওই নারীর স্বামীকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। বাকিটা এখন তাদের ব্যাপার।

x

You May Also Like

About the Author: admin

Hey iam Golam Rabbani